Monday, June 24
Shadow

Tag: করলা

উপকারগুলো জানলে প্রতিদিনিই করলা খাবেন

উপকারগুলো জানলে প্রতিদিনিই করলা খাবেন

Health, Health and Lifestyle, ভেষজ
তিক্ত স্বাদের জন্য অনেকেই করলা পাতে তোলেন না; কিন্তু এ তেতো সবজিতেই রয়েছে যত স্বাস্থ্যগুণ। রোজকার খাবারের তালিকায় করলা পাতে রাখলে শরীর সুস্থ থাকে। কারণ এতে আছে প্রচুর ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, জিঙ্ক, আয়রন, ম্যাগনেশিয়াম ও নানা ধরনের ভিটামিন সুগার নিয়ন্ত্রণ ডায়াবেটিসের সমস্যায় যে সবজিগুলো চোখ বন্ধ করে খাওয়া যায়, তার মধ্যে অন্যতম করলা। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে জাদুকরী কাজ করে সবজিটি। করলার জুস সুগারের মাত্রা কমায় তাৎক্ষণিক। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের করলা খাওয়ার পরামর্শ সব চিকিৎসকই দেন। করলার ফাইবার হজমে বেশ সহায়ক। প্রতিদিন পর্যাপ্ত ফাইবার গ্রহণ মলত্যাগ সহজ করে। শরীর থেকে বর্জ্য বের করতেও সাহায্য করে। করলা লিভার সুস্থ রাখে। এটি লিভারের কার্যকারিতা উন্নত করে এবং শরীরের টক্সিন লিভারের মাধ্যমে ছেঁকে বের করে। যাদের লিভারের কোনো সমস্যা রয়েছে তারাও রোজ করলা খেতে পারে...
টবে করলা চাষ করবেন যেভাবে

টবে করলা চাষ করবেন যেভাবে

Agriculture Tips
টবে করলা চাষ করা যায় সহজে।  টবের আকার বড় হলে ফলনও আসে ভালো। অন্তত মাসের কয়েক দিন খাওয়া যাবে অনায়াসে। টবে করলা চাষ করতে মাটি তৈরি যেকোন ধরনের মাটিতেই করলা চাষ করা যায়। তবে জৈব পদার্থ সমৃদ্ধ দো-আঁশ ও বেলে দো-আঁশ মাটিতে করলার চাষ সবচেয়ে ভালো হয়। পানি জমে থাকে বা ছায়াযুক্ত জায়গায় উচ্ছে-করলার চাষ ভালো হয় না। ছাদে যে অংশে আলোর পরিমাণ বেশি সেদিক নির্বাচন করতে হবে। আর টবে অথবা বেডে যেন কখনই পানি জমে না থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।   জাত  উচ্ছে ও করলা পর-পরাগায়িত সবজি। এর জাত বৈচিত্র্য অনেক। তাই বাড়িতে করলা চাষ করে সে জাত থেকে বীজ সংগ্রহ করে, আবার করলার চাষ করলে তা থেকে ভালো ফল পাওয়া যায় না। সেজন্য প্রতি মৌসুমে ভাল জাতের ভালো বীজ সংগ্রহ করে এর চাষ করা উচিত। যেসব জাত লাগাতে পারেন ১) উচ্চ ফলনশীল জাত বারি করলা ১ ২) বিএডিসি উদ্ভাবিত ‘গজ করলা’। টবে করলা চাষ করতে সাধারণত এ বীজট...
পাইলস থেকে মুক্তি দেয় করলা!

পাইলস থেকে মুক্তি দেয় করলা!

Cover Story, Health and Lifestyle
পাইলস থেকে মুক্তি দেয় করলা! গরম মানেই দুপুরে ভাতের সাথে কিছুটা তেতো তরকারীর স্বাদ। সেটা উচ্ছে বা করলা হতে পারে। শরীর-পেট ঠান্ডা রাখার পাশাপাশি প্রতিটি সবজি আরও অনেক সমস্যার সমাধান করে। উচ্ছে যেমন লো ক্যালোরির তেমনি প্রচুর নিউট্রিয়েন্টস রয়েছে এতে। তাই নিয়মিত উচ্ছের রস বা সিদ্ধ খেলে ভিটামিন ১, ২, ৩, সি, ম্যাগনেসিয়াম, ফোলেট, জিঙ্ক, ফসফরাস, ম্যাঙ্গানিজ আর ফাইবার শরীরে জমা হবে। এছাড়াও, এতে আছে আয়রন, বিটা-ক্যারোটিন, পটাশিয়াম। যা শরীর মজবুত করতে সাহায্য করে। আজ জেনে নিন উচ্ছের গুণাগুণ- ১. রক্ত বিশুদ্ধ করেঃ অনেক সময়েই দূষিত পদার্থ রক্তে জমে গায়ে চুলকানি দেখা যায়। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। এর জন্য সামান্য পরিমান উচ্ছের রসের সঙ্গে সম পরিমাণ পাতিলেবুর রস মিশিয়ে রোজ সকালে খালি পেটে টানা ৩-৪ মাস খেতে পারলে এই সমস্ত সমস্যার সমাধান হবে। ২. ক্যান্সারের প্রতিরোধ করেঃ উচ্ছের রসে এক ধরনের এনজাইম ...

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!