Friday, October 7
Shadow

Agriculture Tips

Agricultural tips, news and updated information

What fertilizer will you give to the plants in the water?

What fertilizer will you give to the plants in the water?

Agriculture Tips
When organic fertilizers are mixed in the soil, plants get the necessary nutrients. But how to meet the nutritional needs of plants that live in water? Plants in water also need fertilizer to grow smoothly. Find out which fertilizers to add to the water of the plants. Plants in water grow relatively slowly. So it is very necessary to provide fertilizer at regular intervals. Egg shells, banana peels or tea leaves can be mixed in water as fertilizer. Egg shell Eggshell contains calcium, nitrogen and magnesium. These elements ensure the necessary nutrition of plants. Crush 5/6 eggshells and immerse them in half a liter of water. Keep it like this for 4 to 5 days. Then mix 50 percent normal water and 50 percent eggshell soaked water together and pour it into the plant container. ...
মেহগনি গাছ ও পরিবেশ : বিপদসংকেত ও করণীয়

মেহগনি গাছ ও পরিবেশ : বিপদসংকেত ও করণীয়

Agriculture Tips, Op-ed
রাজধানীর মোহাম্মদপুরের একটি রাস্তার কথাই ধরি। রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের পাশের রাস্তা। স্কুল ঘেঁষা রাস্তাটির সব পাশের সারি সারি মেহগনি গাছ । চার পাশ মিলিয়ে শ পাঁচেক গাছ হবে। একেক গাছে কয়েকশ করে ফল। ফলগুলো পাখিও খায় না। টুপটাপ রাস্তায় পড়ছে। পথচারীরাও ভড়কে উঠে ভাবছেন, সেরেছে! যদি মাথায় পড়তো! কারও মাথায় পড়তে দেখা না গেলেও বিষাক্ত ফলগুলো কিন্তু ঠিকই রাস্তায় পড়ছে। ড্রেনের পানিতে মিশছে। মাটিতেও মিশছে। কমছে উর্বরা শক্তি। কাঠ ছাড়া আর কিছুই পাওয়া যায় না মেহগনি গাছ থেকে। সেই কাঠ কি আদৌ রফতানি হচ্ছে? ফার্নিচার বেচে রাস্তার আশপাশের লোকজন লাখ লাখ টাকার মালিক হচ্ছে? মোটেও না। বছরের পর বছর এভাবেই আমাদের বেকুব মানসিকতার সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে মেহগনিগুলো। ঠিক যেমনটা আছে ইউক্যালিপটাস ও আকাশমনি। ঢাকার রাস্তার দুই পাশে এমন মেহগনির সারি কিন্তু বিপদেরও কথা। একটু বাতাস হলেই কিন্তু ফলগুলো ছিটকে এসে পড়ছে...
কুমিল্লায় সাম্মাম ফল চাষ : আনোয়ারের সাফল্য

কুমিল্লায় সাম্মাম ফল চাষ : আনোয়ারের সাফল্য

Agriculture Tips
মরু ভূমির দেশের সাম্মাম ফল চাষ হচ্ছে কুমিল্লায়। সাম্মাম ফল দেখতে অনেকটা তরমুজের মত, ঘ্রাণ বাঙ্গির মতো। মিষ্টি, ওপরটা ধূসর, ভেতরটা হলুদ। সদর দক্ষিণ উপজেলার বলরামপুর গ্রামের মাঠে চাষ করা হয়েছে সাম্মাম। বলরামপুর গ্রামের কাজী আনোয়ার হোসেন সাম্মাম ফল চাষ করেছেন। সাম্মাম কিনতে ও দেখতে প্রতিদিনই ভিড় জমাচ্ছেন বিভিন্ন এলাকার মানুষ। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মালচিং সিটের ভিতরে চারা লাগিয়েছেন। মাচায় গাছ তুলে দেয়া হয়েছে। নেটে বাধা হয়েছে ছোট বড় সাম্মাম। হালকা বাতাসে দুলছে সারি সারি সাম্মাম। কোনটির ওজন তিন কেজির বেশি। ক্ষেতজুড়ে পাকা সাম্মাম ঘ্রাণ ছড়িয়ে আছে।  ভিড় করেছেন ক্রেতারা। সদর দক্ষিণ উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের মনির হোসেন বাসসকে বলেন, অনলাইনে সাম্মাম দেখেছেন। কখনও এই ফল খাননি। তাই তিনি এই ফলটি কিনতে এসেছেন। পাশর্^বতী বলরামপুর গ্রামের মোজ্জামেল হক বলেন, এই ফল দেখতে সুন্দর এবং খেতেও বেশ মিষ...
অ্যালোভেরা চাষ করে কেমন লাভ হয়

অ্যালোভেরা চাষ করে কেমন লাভ হয়

Agriculture Tips
চাষীদের কাছে এখন লাভজনক ভেষজ অ্যালোভেরা। নাটোর সদর উপজেলার লক্ষীপুর খোলাবাড়িয়া ভেষজ গ্রামের চাষীরা অ্যালোভেরা চাষ করে বছরে বিঘা প্রতি ২ থেকে ৩ লাখ টাকা লাভ করছেন। প্রতিদিন সে গ্রাম থেকে এক ট্রাক অ্যালোভেরা গাছের পাতা দেশের বিভিন্ন জায়গায় চলে যায়। ১৯৯০ সালে প্রথম নাটোরের লক্ষীপুরের খোলাবাড়িয়া গ্রামের আফাজ পাগলা অ্যালোভেরা চাষ শুরু করেন। ১৯৯৭ সনে সে গ্রামে এর চাষ ছিল মাত্র ২ হেক্টর। বর্তমানে গ্রামটিতে প্রায় ২৫ হেক্টর জমিতে আ্যলোভেরা চাষ হয়।   বাণিজ্যিকভাবে ভেষজ গাছের চাষ করে আয় করুন   উৎপত্তি ও বিস্তার : অ্যালোভেরার আদি নিবাস উত্তর আফ্রিকায় হলেও তা এখন বাংলাদেশসহ এশিয়ার আরও অনেক দেশে জন্মাচ্ছে। অ্যালোভেরা বহুবর্ষজীবী ভেষজ উদ্ভিদ এবং দেখতে আনারস গাছের মতো। এর পাতাগুলি পুরু, দু'ধারে করাতের মতো কাঁটা এবং ভেতরে লালার মতো পিচ্ছিল শাঁস থাকে। কার্ল লিনিয়াস ১৭...
বাণিজ্যিকভাবে ভেষজ গাছের চাষ করে আয় করুন

বাণিজ্যিকভাবে ভেষজ গাছের চাষ করে আয় করুন

Agriculture Tips
ভেষজ গাছের চাষ এ খরচ খুব কম আবার বাজার মূল্য বেশি। আমাদের আশেপাশে যত উদ্ভিদ আছে তার সবই ওষুধ হিসেবে কাজ করে। তাই ভেষজের বাণিজ্যিক চাষ আমাদের জন্য বেশ সম্ভাবনাময়। রফতানির নতুন পণ্য হিসেবেও আমরা ভেষজ চাষ বাড়াতে পারি। আপাতত থাকলো ভেষজের বাণিজ্যিক চাষ শুরু নিয়ে কিছু কথা। পর্যায়ক্রমে কোন ভেষজ কীভাবে চাষ করবেন সেটার বিস্তারিত থাকবে আমাদের অ্যাগ্রিকালচার টিপস মেনুতে। নিয়মিত আপডেট পেতে সাইটটি বেল আইকনে ক্লিক করে Allow বাটনে ক্লিক করে সাবসক্রাইব করে রাখুন।    ভেষজ গাছ কোথায় লাগানো যায় আমাদের দেশের আবহাওয়া, জলবায়ু, মাটি সবই ভেষজ গাছের চাষ উপযোগী। যে কোন মাটিতে এমনকি পতিত জমিতে, সমতল ভূমিতে পাহাড়ি এলাকায়, পাহাড়ের ঢালে, চর এলাকায়, বেড়ি বাধে, বাড়ির আনাচে কানাচে, বাড়ির আঙ্গিনায়, অবহেলিত জমিতে, টবে, ছাদে, বারান্দায়, রাস্তার আশে পাশে, ফসলের জমির আইলে, জলাশয়ের পাড়ে, বিভিন্ন প্র...
টবে পুঁই শাক চাষ করবেন কীভাবে

টবে পুঁই শাক চাষ করবেন কীভাবে

Agriculture Tips
সাধারণত বর্ষার দিকে বা শীতের শুরুতে পুঁই শাকের বীজ লাগালে ভালো হয়। তাই টবে পুঁই শাকের চাষ করতে হলে ওই সময়টা বেছে নিলে ভালো। অবশ্য বারান্দায় সারা বছরই চাইলে পুঁই শাকের চাষ করতে পারেন।  বারান্দায় টবে পুঁই চাষ করার ক্ষেত্রে সবার আগে যা জানা চাই তা হলো, বপনের আগে পুঁই শাকের বীজকে পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে কমপক্ষে ২৪ ঘণ্টা।  এতে বীজের জার্মিনেশন তথা অঙ্কুরোদগম ভালো হয়। ভেজানোর সময় অ্যাসপিরিনি মেশানো পানিতে বীজ ভেজানো হলে তা শোধন হয়ে যায়। অবশ্য মাটি যদি ভালো হয় ও কীট বা ছত্রাকমুক্ত হয় তবে এর প্রয়োজন পড়ে না। একটি বড় টবে বেশ কিছু বীজ বপন করতে পারেন। তবে চারা বড় হলে সেগুলো পাতলা করে দিলে ভালো।    টবের পুঁই শাকের জন্য সার গোবর, ইউরিয়া ও টিএসপি হলো পুঁই শাকের জন্য উৎকৃষ্ট সার। তবে চারা গজানোর ৩০ দিন পর্যন্ত ইউরিয়া দেওয়ার দরকার হয় না। মাটি তৈরির সময়ই তিনভাগ শুকনো গোবরের গুঁড়ো ও ২৫ গ্...
আপনি কি বিনামূল্যে ফলদ গাছ বিতরণে অংশ নিতে চান?

আপনি কি বিনামূল্যে ফলদ গাছ বিতরণে অংশ নিতে চান?

Agriculture Tips, Cover Story
আপনি কি আমাদের বিনামূল্যে ফলদ গাছ বিতরণে অংশ নিতে চান? বা আপনার কি পতিত জমি আছে? যেখানে আপনি ফলদ গাছ রোপণ করতে পারবেন? তাহলে আজই ‘বেল’ আইকনে ক্লিক করে আমাদের সাইটটির বন্ধু হয়ে যান এবং এই চ্যানেলটিতে সাবসক্রাইব করে রাখুন। আর আপনি স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে গাছ বিরতণ কাজে অংশ নিতে চাইলে নিচের দেওয়া নম্বরটিতে সরাসরি কল করে জানান। কারণ গাছ বিতরণ সংক্রান্ত তথ্য, ছবি, টিপস, সবই থাকবে এই সাইটে ও ভিডিও পাওয়া যাবে ওই চ্যানেলে। মাটির পক্ষ থেকে গাছ বিতরণ কার্যক্রম চলতেই থাকবে। আপনাদের সমর্থন পেলে আরও ফুলেফেঁপে উঠবে এই অভিযান। দেশটাকে ফলদ গাছে ভরে দিতে পারলেই আমাদের অনেক সমস্যার সমাধান হবে। সমাধান হবে খাদ্য ও পুষ্টি সমস্যারও। তাই আগ্রাসী ও বেদরকারি অ্যাকাশিয়া, মেহগনীকে না বলে বেশি করে কাঁঠাল, আম, জামরুল  এসব গাছ লাগান। ফিরিয়ে আনুন আমাদের রসাল ফলের ঐতিহ্য। ঠেকিয়ে দিন ফল নিয়ে সিন্ডিকেট ব্যবস...
How to use turmeric in plant care

How to use turmeric in plant care

Agriculture Tips
If you have a hobby of gardening, you have to face various problems. Sometimes the roots of the tree are destroyed by the insects, and sometimes the branch of the tree is broken due to injury. Turmeric powder can be used to solve various problems instead of pesticides or harmful chemicals. How to use turmeric in plant care Sprinkle turmeric powder around the tub to deter ants. You can put a few pinches of turmeric powder on the soil as well. It will not attack the ants on the ground. Mix 1 teaspoon of turmeric powder in 1 gallon of soil while preparing the plant soil. There will be less harmful insects in the soil. If the soil of the tub is attacked by insects, mix 1 teaspoon of turmeric powder in 1 liter of water and sprinkle it. While trimming the tree, the bark may co...
এক নজরে মরিচ চাষ

এক নজরে মরিচ চাষ

Agriculture Tips
এক নজরে মরিচ চাষ উন্নত জাতঃ বারি মরিচ -১, বারি মরিচ-২ এবং বারি মরিচ -৩। বারি মরিচ -১ সারা বছর চাষ করা যায় । বারি মরিচ -২ গ্রীষ্মকালীন এবং বারি মরিচ-৩ শীতকালে চাষ উপযোগী। এছাড়াও সনিক, প্রিমিয়াম, ধুম, মেজর, ডেমন, চন্দ্রমুখী, হটমাস্টার, এম এস ফায়ার, যমুনা প্রভৃতি জাত রয়েছে। পুষ্টিগুনঃ কাঁচা মরিচে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। ১০০ গ্রাম মরিচে ১২৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি রয়েছে । তাছাড়া মরিচে নানা রকম পুষ্টিগুন যেমনঃ ১ গ্রাম খনিজ পদার্থ, ৭ গ্রাম আঁশ,১০৩ কিলোক্যালরি খাদ্যশক্তি, ২ গ্রাম আমিষ, ১১ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ২ মিলিগ্রাম লৌহ, ২৩৪০ মাইক্রোগ্রাম ক্যারোটিন,  ভিটামিন বি-২ ও ২৪ গ্রাম শর্করা ইত্যাদি রয়েছে । বপনের সময়ঃ খরিফ-১ মৌসুমে: ১-৩০ ফাল্গুন (১৫ ফেব্রুয়ারি-১৫ মার্চ)। খরিফ-২ মৌসুমে: শ্রাবণ-ভাদ্র (১৫ জুলাই থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর)। রবি মৌসুমে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর উপযুক্ত সময়। চাষপদ্ধ...
টবে মরিচ চাষ – টবে বারান্দায় মরিচ চাষে কী সার দিতে হবে

টবে মরিচ চাষ – টবে বারান্দায় মরিচ চাষে কী সার দিতে হবে

Agriculture Tips
টবে চাষ করতে পারেন মরিচ। কেননা মরিচ আমাদের প্রতিদিনের রান্নায় খুব অল্প পরিমানেই লাগে। রোদ যুক্ত স্থানে রেখে নিয়মিত অল্প পরিচর্যা করলেই টবে মরিচ চাষ করে ভালো ফলন পাওয়া সম্ভব। এক পলকে দেখে নিন টবে মরিচ চাষ করার কৌশল, গাছ লাগানোর পদ্ধতি ও যত্ন নেয়ার নিয়ম কানুন। মরিচের চারা বপনের সময় মরিচ সাধারনত সারা বছরেই জন্মে তাই বছরের যে কোনো সময়েই আপনি মরিচের চারা লাগাতে পারবেন। তবে মে থেকে জুন অথবা শীতের শুরুতে অক্টোবর মাসে মরিচের বীজ বপন করলে ফলন বেশি হয়।   মাটি প্রস্তত মাঝারী আকারের টবেই রোপন করতে পারেন। মরিচের জন্য দোআঁশ মাটি উৎকৃষ্ট। টবের আকারের অর্ধেক পরিমান দোআঁশ মাটি আর তার সম পরিমান শুকনো গোবর, দশ গ্রাম পটাশ, দশ গ্রাম টি,এস,পি ও এক চামচ পরিমান ইউরিয়া ভালোভাবে মিশিয়ে টব পূর্ণ করুন। আপনি গোবরের পরিবর্তে কম্পোস্ট সার ব্যবহার করতে পারেন। এভাবে টবের মাটি প্রস্তুত করে ৮ থেকে ১০ দিন...

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!