Monday, July 22
Shadow

Tag: ঘূর্ণিঝড় ফণীর

শক্তি কিছুটা কমেছে ঘূর্ণিঝড় ফণীর

শক্তি কিছুটা কমেছে ঘূর্ণিঝড় ফণীর

Cover Story
শক্তি কিছুটা কমেছে ঘূর্ণিঝড় ফণীর শক্তি কিছুটা কমে ঘূর্ণিঝড় ফণী এখন তীব্র প্রবল ঘূর্ণিঝড় (এক্সট্রিমলি সিভিয়ার সাইক্লোনিক স্টর্ম) থেকে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে (সিভিয়ার সাইক্লোনিক স্টর্ম) পরিণত হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। একই সঙ্গে পায়রা ও মোংলা সমুদ্রবন্দরে ৭ নম্বর, চট্টগ্রাম বন্দরে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত এবং কক্সবাজারে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত বহাল রেখেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। শুক্রবার বিকেলে আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে (ক্রমিক নম্বর-৩৮) বলা হয়েছে, ভারতের ওড়িশা উপকূল ও কাছাকাছি উপকূলীয় উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়টি আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও কিছুটা দুর্বল হয়ে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় আকারে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি শুক্রবার বিকেল ৩টায় মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৪৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, ...
ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে কিশোরগঞ্জে বজ্রপাতে নিহত ৪

ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে কিশোরগঞ্জে বজ্রপাতে নিহত ৪

Cover Story
ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে কিশোরগঞ্জে বজ্রপাতে নিহত ৪ কিশোরগঞ্জের ইটনা , মিঠামইন ও পাকুন্দিয়া উপজেলায় বজ্রপাতে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরের দিকে প্রবল ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে সৃষ্ট বৃষ্টির সময় বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলেন- ইটনা উপজেলার ধনপুর ইউনিয়নের কাটুইর গ্রামের রাখেশ দাসের ছেলে রুবেল দাস (২৬), মিঠামইন উপজেলার বৈরাটি ইউনিয়নের বিরামচর গ্রামের গোলাপ মিয়ার ছেলে মহিউদ্দিন (২৩), একই উপজেলার কেওয়াজোড় ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামের এবাদ মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (৭) ও পাকুন্দিয়া উপজেলার সুখিয়া ইউনিয়নের কুর্শাকান্দা গ্রামের আয়াজ আলীর ছেলে আসাদ মিয়া (৫৫)। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে শুক্রবার দুপুরের দিকে জেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রবল বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়া বয়ে যায়। এ সময় মাঠে কাজ করার সময় পাকুন্দিয়া, ইটনা ও মিঠামইনে তিন কৃষক ও মাঠে থেকে গরু আনতে গিয়ে এক শিশুর মৃত্যু ...
ঘূর্ণিঝড় ফণীর যত ভয় ৫ ফুট জলোচ্ছ্বাসে

ঘূর্ণিঝড় ফণীর যত ভয় ৫ ফুট জলোচ্ছ্বাসে

Cover Story
  ঘূর্ণিঝড় ফণীর যত ভয় ৫ ফুট জলোচ্ছ্বাসে এপ্রিল-মে—এই সময় বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হওয়াকে স্বাভাবিক নিয়ম ধরে নিয়ে বেশ নির্ভার ছিল আবহাওয়া অফিস। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া নিম্নচাপটি গত শনিবার যখন ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয় তখনো এর ভয়াবহতা কেমন হতে পারে তা আঁচ করতে পারেননি আবহাওয়াবিদরা। সময় যত গড়িয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ফণীর তত শক্তি সঞ্চয় করে এখন উপকূলে আছড়ে পড়ার অপেক্ষায়। ফণী এখন আর ঘূর্ণিঝড়ের মধ্যে (ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ ৬২-৮৮ কিলোমিটার) সীমাবদ্ধ নেই। এক্সট্রেমলি সিভিয়ার সাইক্লোনিক স্ট্রম বা অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। যেখানে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ থাকে ১১৮ থেকে ২১৯ কিলোমিটারের মধ্যে। বাংলাদেশ ও ভারতের আবহাওয়া অফিসের দেওয়া তথ্যমতে, ব্যাপক শক্তি সঞ্চয় করে ফণী আজ শুক্রবার বিকেলে ভারতের ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে। তখন বাতাসের গতিবেগ থাকবে ১৬০ থেকে ১৮০ কিলোমিটারের মধ্যে। এরপর এটি ওড়িশা থেকে ...

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!