Friday, July 19
Shadow

Tag: দুবাই

Dynamic Dubai

Dynamic Dubai

Travel Destinations, UAE
Dubai is a city for all. Whether you are visiting as a couple, a group of friends or in family, there's a perfect itinerary for all Every year millions of tourists flock to Dubai for business, holidays, shopping etc. With an array of entertainment, it may have a reputation of being a luxury destination. However, that doesn't mean that you need a deep purse to enjoy its many attractions and once-in-a-lifetime activities. To say Dubai has it all, won't be an exaggeration. Family fun Hitting the beach is often the first priority for younger travellers. And the sands at JBR are perfect for all ages – the biggest draw being the giant inflatable waterpark anchored out at sea. The whole family can swing, slide, bounce, climb and inevitably make a splash off this edifice of fun. One of...
কপাল খুলেছে দুবাইয়ের ট্যাক্সিচালক রেনজিথের

কপাল খুলেছে দুবাইয়ের ট্যাক্সিচালক রেনজিথের

UAE
ভারতের কেরালার রেনজিথ সোমরাজন। কাজের জন্য ২০০৮ সালে যান দুবাইয়ে। কখনো ট্যাক্সি চালাতেন, কখনো কোম্পানিতে সামান্য বেতনে কাজ করতেন।  অবশেষে তাঁর কপাল খুলেছে। গত শনিবার একটি লটারি পেয়েছেন। এই লটারির মূল্য ২ কোটি আমিরাতি দিরহাম, যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪০ কোটি রুপি। গতকাল বুধবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লটারি পাওয়ার পর সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস সোমরাজনের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন।সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, তিন বছর ধরে তিনি লটারি কিনে আসছিলেন। কখনো কল্পনাতেই আনতে পারেননি যে একদিন বিশাল মূল্যের এই লটারি তিনি জিতবেন। ৩৭ বছর বয়সী সোমরাজন বলেছেন, ‘প্রথম নয়, দ্বিতীয় বা তৃতীয় (পুরস্কার) পেলেই তিনি খুশি হতেন।’ তিনি লটারির প্রথম পুরস্কারই জিতেছেন। লটারির দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কারমূল্য হচ্ছে যথাক্রমে ৩০ লাখ ও ১০ লাখ দিরহাম। শনিবার যখন লটারির নম্বর ঘোষণা করা হয়, তখন দুবাই...
দুবাইতে সততার নজীর গড়লেন বাংলাদেশি বাছির আহমেদ

দুবাইতে সততার নজীর গড়লেন বাংলাদেশি বাছির আহমেদ

Cover Story
সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে সততার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বাংলাদেশি বাছির আহমেদ। ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার কসবার মইনপুরের আমির হোসেনের ছেলে বাছির মানুষের হারিয়ে যাওয়া মালামাল পুলিশের মাধ্যমে ফিরিয়ে দিয়ে সততার অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন। দেশের এনেছেন সুনাম। বাংলাদেশি মানুষের এমন সততায় মুগ্ধ দুবাই পুলিশ। বাছির ২০০৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে আসেন। সেখানে কাজ করার পর ২০১৫ সালে দুবাইয়ে পাড়ি জমান। স্টার সিকিউরিটি সার্ভিস দুবাইয়ে সিকিউরিটির কাজ করেন তিনি। তার কাজের এলাকা দুবাইয়ের ড্রাগন মার্ট। সিকিউরিটির কাজ করা অবস্থায় মলে আসা মানুষদের স্বর্ণ, টাকা, মানিব্যাগসহ দরকারি জিনিসপত্র তিনি পেয়ে থাকলে ঠিক ওই জায়গা থেকেই সিসিটিভি চেক করেন। এরপর ওই মানুষটা কোনো গাড়িতে বা কিভাবে বের হয়ে গেছে দেখে তার তথ্য উদ্ধার করে স্থানীয় পুলিশে মালগুলো তিনি জমা দেন। পরে হারিয়ে যাওয়া মালে...
বিশ্বের প্রথম ক্লোন উট ইনজাজ এর ১০ম জন্মদিন

বিশ্বের প্রথম ক্লোন উট ইনজাজ এর ১০ম জন্মদিন

Cover Story
পৃথিবীতে ৯ বছর সুস্থ স্বাভাবিকভাবে কাটিয়ে দিল বিশ্বের প্রথম ক্লোন উট ইনজাজ । আরবি শব্দ 'ইনজাজ' এর অর্থ 'অর্জন'। আজ ৮ এপ্রিল তার ১০ম জন্মদিন। ২০০৯ সালের এই দিনে দুবাইয়ের রিপ্রডাক্টিভ বায়োটেকনোলজি সেন্টারে ৫ বছরের গবেষণার ফল হিসেবে তার জন্ম হয়েছিল। ইন-ভিটরো ফার্টিলাইজেশন (আইভিএফ) এবং সোমাটিক সেল নাকলার ট্রান্সফার টেকনোলজির (ক্লোনিং) সফল প্রয়োগ করা হয় ইনজাজের ওপর। উট ইনজাজ একটি মাদী উট। তাকে ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে সফলভাবে পৃথিবীতে এনেছেন দুবাইয়ের রিপ্রোডাকটিভ বায়োটেকনোলজি সেন্টারের সায়েন্টিফিক ডিরেক্টর ড. নিসার আহমেদ ওয়ানি। একটি স্বাভাবিক উট সাধারণত ৪০ বছর বাঁচে। সেদিক দিয়ে ক্লোন তার জীবনের চার ভাগের একভাগ কাটিয়ে ফেলেছে। শুধু তাই নয়; সে গর্ভবতীও হয়েছিল এবং দুটি সুস্থ বাচ্চাও প্রসব করেছে। ড. নিসার ওয়ানি বলেছেন, 'ইনজাজ আমাদের প্রথম সফল ক্লোন করা উট। আর দশটি উটের মতোই সুস্থ এবং স্বাভাবিকভ...
দুবাই ভ্রমণে গেলে যে জায়গাগুলো মিস করবেন না

দুবাই ভ্রমণে গেলে যে জায়গাগুলো মিস করবেন না

Cover Story, Travel Destinations
দুবাই শহরটি সবার জন্য। হতে পারে আপনারা দম্পতি, একদল বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে ঘুরতে এসেছেন, সবার জন্যই থাকছে একটি নিখুঁত ভ্রমণতালিকা। ব্যবসা, ছুটি কিংবা কেনাকাটা; প্রতিবছরই লাখ লাখ পর্যটক ঝাঁক বেঁধে আসে দুবাইতে। বিনোদনের একরাশ আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিলাসি গন্তব্য হিসেবে এ শহরের রয়েছে আলাদা সুনাম। তবে তার মানে এই নয় যে এখানকার অগণিত আকর্ষণ ও ‘জীবনে একবার আসে’ ঘরানার যাবতীয় উপকরণ উপভোগ করতে আপনাকে ভারি পার্স নিয়ে ঘুরতে হবে। দুবাইতে সবই আছে, কথাটা কিন্তু মোটেই বাড়িয়ে বলা নয়। পারিবারিক মজা তরুণ ভ্রমণকারীদের কাছে সৈকতে ঢুঁ মারাটাই দেখা যায় তালিকার প্রথমে থাকে। আর জেবিআর এর বালুময় সৈকতটা যেন সকল বয়সীদের জন্যই নিখুঁত- যার বড় আকর্ষণটা হলো সমুদ্রের ওপর ভেসে বেড়ানো অতিকায় ভাসমান ওয়াটারপার্ক। আনন্দের এই অট্টালিকায় চড়ে গোটা পরিবারই মেতে উঠতে পারে সুইং, স্লাইড, বাউন্স, ক্লাইম্ব কিংবা জলের ওপর অবধারি...

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!