Thursday, April 25
Shadow

রেডিমিক্স মাটি কেন ব্যবহার করবেন | রেডিমিক্স কোথায় পাবেন

ছাদবাগান বা বারান্দায় বাগানের জন্য প্রয়োজন হয় ভালো ও উন্নত মাটির। আর এক্ষেত্রে রেডিমিক্স মাটি বলে বাজারে এক ধরনের মাটি পাওয়া যায়। কিছুটা দাম দিয়ে হলেও এ মাটি কিনলে শখের বাগানিরা অনেক ঝামেলা থেকেই বাঁচবে।

রেডিমিক্স মাটি কেন?

  • এ মাটিতে সঠিক অনুপাতে বেশিরভাগ পুষ্টিকর উপাদান মেশানো থাকে।
  • বাড়তি করে আর আপনাকে কোনো সার বা কীটনাশক বা বেলে দোঁয়াশ মাটির ব্যবস্থা করতে হবে না।
  • মাটির স্বাস্থ্য বা পিএইচ ব্যালেন্স ঠিক আছে কিনা সেটা পরীক্ষা নিয়েও টেনশন থাকবে না।
  • রেডিমিক্স মাটি ঝুরঝুরে হয়। এতে সহজে পানি নিষ্কাশন হয়।
  • রেডিমিক্স মাটি টবের গাছের জন্য উপযোগী।
  • সাধারণ মাটিতে ইট, প্লাস্টিক ও আগাছার শেকড়সহ আরও নানা অপ্রয়োজনীয় জিনিস মেশানো থাকতে পারে। টবের অল্প জায়গায় সেগুলো জায়গা দখল করে থাকে। রেডিমিক্স মাটিতে এসব থাকে না। তাই মাটি পরিষ্কার করতে বাড়তি সময় দিতে হয় না।
  • বিভিন্ন উপাদান সঠিক অনুপাতে মেশানো থাকে বলে রেডিমিক্স মাটি সরাসরি টবে ব্যবহার করা যায়। এখানে কষ্ট করে মাটির সঙ্গে এটা সেটা ওজন করে মেপে মেশাতে হয় না।
  • তাই এতসব কষ্ট ও সময় বাঁচাতে রেডিমিক্স মাটিই হতে পারে দারুণ অপশন। আর এর দামও যে খুব বেশি তা নয়। বাজার করবো সাইটে স্পেশাল গ্রো মিক্স মাটি পাবেন প্রতি ১০ কেজির বস্তা ২০০ টাকায় (ডেলিভারি চার্জ প্রযোজ্য)।

একটি টবে কত কেজি মাটি লাগবে

সহজ হিসাবটা হলো একটি ১০-১২ ইঞ্চি সাইজের রাউন্ড প্লাস্টিকের টবে রেডিমিক্স সয়েল লাগবে ৫ কেজির মতো।

রেডিমিক্স মাটিতে যা যা মেশানো থাকবে Ingredients of Ready Mix Soil for garden

  • বেলে দোআঁশ মাটি
  • জৈব সার
  • কোকোডাষ্ট
  • চিটা কম্পোস্ট ছাই
  • হাড় গুড়া
  • ডিমের পাউডার
  • নিম খৈল
  • ট্রাইকোডার্মা

ভার্মি কম্পোস্ট কী

এটি হলো একশ ভাগ অর্গানিক সার। কেঁচো সারও বলা হয় একে। কেঁচোর মাধ্যমে এ সার তৈরি করা হয়। কেঁচোকে গোবার, কচুরি পানা, গৃহস্থালির বর্জ খাওয়ানোর পর যে মল তৈরি হয় সেটাই ভার্মি কম্পোস্ট। বাজার করব ডট কম-এ ভার্মি কম্পোস্ট জৈব সার পাচ্ছেন ১০ কেজি মাত্র ১৫০ টাকায়।

ভার্মি কম্পোস্ট সারে কি কেঁচো থাকে?

ভার্মি কম্পোস্ট সারটি ছেঁকে তারপর প্যাকেটজাত করা হয়। তাই এতে কেঁচো থাকে না। তাছাড়া যারা ভার্মি কম্পোস্ট উৎপাদন করেন তাদের কাছে কেঁচো অত্যন্ত দামি একটি উপকরণ। তাই তারা তো জেনে বুঝে সারের সঙ্গে কেঁচো দেবেন না। তবে মাটিতে কেঁচো থাকাটা কিন্তু এক দিক দিয়ে ভালো। এরা মাটিতে বাতাসের সরবরাহ ঠিক রাখে ও প্রাকৃতিক লাঙলের কাজ করে। আবার কেঁচো থাকলে সারও তৈরি হয় ওই মাটিতে।

রেডিমিক্স মাটি ব্যবহারের সুবিধা

১। এটি ঝুরঝুরে, কোকোডাস্ট ও ভারমি কম্পোস্টের মিশ্রণে তৈরি।

২। এতে পানি আটকে থাকে না।

৩। শেকড় পরিষ্কারের পর এটি পুনরায় ব্যবহার করা যায়। তখন এতে শুধু পরিমাণমতো (৩০%) ভার্মি কম্পোস্ট বা জৈব সার মেশালেই হয়। ছত্রাক তথা ফাঙ্গাসের সংক্রমণের আশঙ্কা থাকলে পুনরায় মাটি তৈরির সময় এক-দুই চিমটি ম্যানসার মিশিয়ে দেবেন।

৪। রেডিমিক্স সয়েল ব্যবহারে বাড়তি সার প্রয়োগের দরকার নেই।

৫। এতে খুব সহজে বাতাস প্রবেশ করতে পারে।

৬। এর পিএইচ মাত্রা ঠিক থাকে।

৭। এতে শেকড় দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই গাছের বৃদ্ধির গতি বাড়ে।

৮। এতে নিড়ানি দেওয়া সহজ। আগাছা জন্মালে তা সহজে টেনে তুলে ফেলা যায়।

৯। যেকোনো ফল গাছ থেকে শুরু করে সবজি, ফুল গাছ সব কিছুতেই রেডিমিক্স মাটি বেশ উপকারী। তবে টমেটো জাতীয় কিছু ফলের জন্য এতে বাড়তি করে কিছু সার দিতে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!