Monday, July 15
Shadow

এখন বলে দিলে মজা নষ্ট হয়ে যাবে : নুসরাত ফারিয়া

কলকাতায় সুপারস্টারের কদর পান নুসরাত ফারিয়া।  ‘অপারেশন সুন্দরবন’ ছবির সাফল্যে ভাসছেন এখন। চলতি মাসে কলকাতায় ‘বিবাহ অভিযান ২’-এর শ‍ুটিং করেছেন। শুটিংয়ের বিরতিতে চার দিনের জন্য এসেছেন ঢাকায়। সে ফাঁকেই আলাপচারিতায় মেতেছেন নুসরাত ফারিয়া

nusrat faria
তিন বছর পর ‘বিবাহ অভিযান ২-এর সিক্যুয়াল শুরু হলো। এবারের পর্ব কেমন হচ্ছে?

নুসরাত ফারিয়া: চমৎকার। প্রথম ছবির সাফল্যের পর সিক্যুয়াল আসছে। যদিও আরও আগে শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু নানা কারণে সেটা পেছায়। অবশেষে ‘বিবাহ অভিযান ২’-এর শুরু হলো; এবং কাজটা আমি খুব উপভোগ করছি।

বিবাহ নিয়ে নতুন খবর কী?

নুসরাত ফারিয়া: এটা এখন বলে দিলে গল্পের মজা নষ্ট হয়ে যাবে। তবে আগের চেয়ে এবারের গল্পে কমেডি আরও অনেক বেশি। দর্শকদের জন্য পুরোপুরি একটা হাসির প্যাকেজ হতে যাচ্ছে ‘বিবাহ অভিযান ২’। সবার আগে আমি চরিত্রটা দেখি। আসলে প্রত্যেক শিল্পীকে বিশ্বাস রাখতে হবে, কিন্তু ঝুঁকি মনে করলে মাল্টি কাস্টিংয়ের সিনেমা করতে অনেক সমস্যা হয়। নিজের চরিত্র যেটা, সেটা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে পর্দায় তুলে ধরাটাই হচ্ছে আসল বিষয়। ১৬ নভেম্বর থেকে টানা ৩০ নভেম্বর ছবিটির শুটিং চলবে।

না, এটা বলিনি। বোঝাতে চাচ্ছি আপনার বিয়ে নিয়ে নতুন তথ্য কী? রনির সঙ্গে সংসার পাতছেন কবে।

নুসরাত ফারিয়া: হ্যাঁ, হ্যাঁ। আপাতত তথ্য নেই। চলতি বছর মাত্রই আমার গ্র্যাজুয়েশন শেষ হলো। এখন আমার লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে হবে। আরেকটু সময় দরকার। আমি তো ভাবছি, সেই ১৪ বছর বয়স থেকে। তখন থেকেই আমি কাজ করে চলেছি। জীবনটা উপভোগ করতে চাই আগে। তারপর আরও বড় দায়িত্ব (বিয়ে) নেব।

কারণ কি শুধুই এটা? অনেকে বলেন আর বিয়েই করবেন না?

নুসরাত ফারিয়া: অবশ্যই বিয়ে করব—এটা নিশ্চিত। এখন বিয়ে করছি না এই যা। আরও একটা বিষয় আছে। আমরা দুজনই বড় হয়েছি আর্মি পরিবারে। আমাদের পরিবারে অনেক আত্মীয়স্বজন। তাদের নিয়ে বড় আয়োজন করতে হবে। এজন্য আমাদের সময়ও দরকার। আবার আমার টানা সিডিউল ও রনির নতুন বিজনেস নিয়ে সময়ও পাওয়া যাচ্ছে না।

দুই বাংলাতেই আপনি কাজ করছেন। কলকাতায় কাজ করতে গেলে কখনো কি বাংলাদেশি হিসেবে বৈষম্যের শিকার হতে হয়?

নুসরাত ফারিয়া: একেবারেই না। আমি সেখানে সুপারস্টারের মতো কদর পাই। কখনো আমার সঙ্গে সেখানে কোনো রকম বৈষম্য দেখতে পাইনি। পশ্চিমবঙ্গে আমার আলাদা একটা মার্কেট আছে।

নতুন ছবির খবর কী?

নুসরাত ফারিয়া: তিনটি সিনেমায় কাজের ব্যাপারটি চূড়ান্ত হয়েছে। এর মধ্যে দুইটি বাংলাদেশের এবং একটি কলকাতার। ‘বিবাহ অভিযান ২’ শেষ করে ডিসেম্বরে একে একে দেশের ছবিগুলোতে কাজ করব। পরে আগামী বছর ফেব্রুয়ারিতে কলকাতার প্রজেক্টটিতে অংশ নেব। তবে এখন বিস্তারিত কিছু বলতে চাইছি না।

আপনার সর্বশেষ সিনেমা ‘অপারেশন সুন্দরবন’ মুক্তির ৫০ দিন পার করল। সব মিলিয়ে এই ছবির জার্নিটা কেমন ছিল?

নুসরাত ফারিয়া:সাধারণ। কারণ কোনো উৎসবে মুক্তি না পেয়েও ‘অপারেশন সুন্দরবন’ দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে। দর্শকের মাঝে সাড়া ফেলেছেন, সবাই ছবিটি দেখে ভালোবাসা জানিয়েছেন। শুধু দেশে নয়, কলকাতায়ও অনেকে বলেছেন, ছবিটা অনেক ভালো হয়েছে। সেখানকার দর্শক দ্রুতই ‘অপারেশন সুন্দরবন’ দেখতে পাবেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!