Thursday, February 2
Shadow

সহজে রান্না করার কিছু টিপস

পুরো সপ্তাহের খাবারের মেন্যু একবারে বসে ঠিক করে ফেলুন। সাত দিনের তিন বেলার পরিকল্পনা করে লিখে ফেলুন। এবার মেন্যু ধরে ধরে বাজার করুন বা ফ্রিজে মাছ, মাংস, সবজি প্যাকেট করে রাখুন। এটুকু কাজে পুরো সপ্তাহে রান্না নিয়ে বাড়তি চিন্তা থেকে রেহাই মিলবে। হঠাৎ করে মেহমান এলে বা নতুন কোনো পদ রান্না করতে চাইলে আগের রাতেই সে অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সব সরঞ্জাম গুছিয়ে রাখুন।

রান্নার টিপস

সপ্তাহে বা ১৫ দিনে এক দিন রান্নার বাড়ন্ত জিনিস সেগুলো খুঁটিয়ে দেখুন এবং একটি তালিকা তৈরি করুন। সে অনুযায়ী মাছ-সবজি, মসলা ও মুদি বাজার করুন। পর্যাপ্ত পরিমাণে ডিম, আলু, ডাল, আটা জাতীয় শুকনা খাবার মজুত রাখুন। ঝটপট মজাদার খাবার রান্না করতে এসব খাবারের জুড়ি নেই। সব মসলার কৌটার গায়ে নাম লিখে রাখুন। রান্নার সময় সহজেই খুঁজে পাবেন।

বিভিন্ন রেডি ফ্রোজেন ফুড বানিয়ে বা সুপার শপ থেকে কিনে রাখতে পারেন। ফ্রোজেন রুটি, পরোটা, রেডিমেড শিঙাড়া, সমুচা, কাবাব, রোল, সসেজ কিনে ফ্রিজে রাখুন। হালকা খিদে বা চায়ের সঙ্গে ঝটপট নাশতা পেয়ে যাবেন। স্ন্যাকসের জন্য নুডলস, পাস্তা, চিপস, পাউরুটি, বিস্কুটও রেডি রাখুন। চাইলে ছুটির দিনে শুকনো পিঠা, রোল ইত্যাদি কিছু খাবার বানিয়েও রাখতে পারেন। ঘরে বাদাম জাতীয় ড্রাই ফ্রুটস, দুধ-কলা, আপেল ইত্যাদি ফলমূল রাখতে পারেন। এগুলো খিদে মেটানোর পাশাপাশি শরীরে পুষ্টি জোগাবে।

প্রতিবার রান্নার সময় আলাদা করে কুটা-বাটা না করে একবারে বেশি করে আদা, রসুন, পেঁয়াজ ও অন্যান্য মসলা বেটে আইস বক্সে জমিয়ে নিন। যখন প্রয়োজন এক কিউব করে বের করলেই হবে। একইভাবে মসলা কুচি করে রাখতে পারেন। মসলা কুটা-বাটার জন্য গ্রাইন্ডার, নানা ধরনের চপার পাবেন বাজারে। এগুলোর ব্যবহারে সময় আর শ্রম দুই-ই কমবে। খাবার গরম করার জন্য ওভেন, দ্রুত নাশতা বানানোর জন্য স্যান্ডউইচ মেকার, কফি মেকার, রাইস কুকার ব্যবহার করা যেতে পারে।

গোছগাছ, কুটা-বাছা ছাড়াও দ্রুত রান্নার আরও কিছু কৌশল রয়েছে। তাড়াতাড়ি ডাল ও চাল সেদ্ধ করতে চাইলে রান্নার ঘণ্টাখানেক আগে ভিজিয়ে রাখুন। মাংস তাড়াতাড়ি সেদ্ধ করতে চাইলে খোসাসহ এক টুকরো কাঁচা পেঁপে বা আস্ত একটা সুপারি মাংসের মধ্যে দিন। একই হাঁড়িতে আলু ও ডিম সেদ্ধ করলে সময় কম লাগবে।

রান্নার সময় পাতিলে ঢাকনা দিয়ে রান্না করুন, খাবার দ্রুত সেদ্ধ হবে এবং খাবারের পুষ্টিমানও ঠিক থাকবে। দ্রুত রান্না করতে চাইলে রান্নায় ঠান্ডা পানি না দিয়ে কেটলিতে পানি ফুটিয়ে দিন। মাংস, মাছ বা কলিজা রান্নার আগে কিছুক্ষণ ভিনেগার পানিতে রেখে কচলে ধুয়ে নিন। এতে মাছ, মাংসের গন্ধ দূর হবে আর দ্রুত সেদ্ধ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!