Monday, July 22
Shadow

সপ্তম শ্রেণির আনন্দপাঠ : তোতাকাহিনী

সপ্তম শ্রেণির আনন্দপাঠ বইয়ের প্রথম গল্প তোতাকাহিনী গল্পটি লিখেছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তোতাকাহিনী গল্পটি শিক্ষণীয় গল্প। এই গল্পে একটি পাখিকে শিক্ষা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। আসলে পাখির সাথে পোষ মানানো কথাটা অধিক মানানসই।  কিন্তু শিক্ষা কি দেওয়া যায়? বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এই গল্পে সেটাই বুঝিয়ে দিয়েছেন।

তোতাকাহিনী সপ্তম শ্রেণি

তোতাকাহিনী : গল্প কাহিনি

তোতাকাহিনী গল্পে রাজা পাখি  ছিল, পাখিটি গান গাইত। কিন্তু শাস্ত্র পড়ত না, উড়ত, লাফাইত, কিন্তু কোন কায়দা কানুন জানতো না। এসব কারণেই রাজা মন্ত্রীকে আদেশ দিলেন যেন পাখিটাকে শিক্ষা দেওয়া হয়। আর রাজার ভাগনেরা পেল পাখিটাকে শিক্ষা দেওয়ার দায়িত্ব। রাজপন্ডিতরা বিচার করলেন পাখিটির অবিদ্যার কারণ তার যে সামান্য খড়কুটোর বাসা সেখানে বিদ্যা বেশি ধরে না।

বিচার বিবেচনা করে বাসা বানানো হলো। স্যাকরা থলি বোঝাই বকশিস পেল সোনার খাঁচা বানাতে। বিদ্যা শিখাতে লিপিকরকে তলব করা হলো। লিপিকর পুঁথি লিখে দিলেন পারিতোষিক নিয়ে চলে গেলেন।

পাখিটাকে শিক্ষা দেওয়ার জন্য দিনের পর দিন চলছিল নানান আয়োজন। ওদিকে পাখিটা প্রায় আধমরা। লোকজন বিভিন্ন সময় পাখিটাকে নিয়ে বলাবলি করলে রাজা খোঁজ নেওয়ার জন্য ভাগনেদের ডাকলে ভাগনেরা সত্য প্রকাশ করা লোকগুলোকে নিন্দুক বলল। আর বলল নিন্দুকগুলো খাইতে পায় না বলে মন্দ কথা বলে।

অবশেষে একদিন রাজার ভুল ভাঙে। রাজা পাখিটাকে দেখার ইচ্ছে পোষণ করলে ততদিনে পাখিটা মারা যায়। আর রাজার ভাগনেরা বলে—পাখিটার পুরো শিক্ষা হয়েছে।

লেখক পরিচিতি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ২৫ বৈশাখ ১২৬৮ বঙ্গাব্দে (৭ মে ১৮৬১ সাল)কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুর বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অসামান্য প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। মাত্র পনের বছর বয়সে তার বনফুল কাব্য প্রকাশিত হয়। ১৯১৩ সালে তিনি গীতাঞ্জলি কাব্যের জন্য নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। তিনি গল্প, কবিতা, ছোটগল্প, গান ও সাহিত্যের সব শাখায় অবদান রেখেছেন। ২২ শ্রাবণ ১৩৪৮ ৭ ই আগস্ট ১৯৪১ সালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তোতাকাহিনীর উপলব্ধির বিষয়

  • পাখি মুক্ত আকাশে সাচ্ছন্দ্য বোধ করে সোনায় খাঁচায় নয়।
  • পাখিকে পোষ মানানো যায় পুঁথিগত বিদ্যা নয়।
  • দায়িত্ব অর্পণের পর নজরদারি জরুরি।
  • বিবেককে সঠিক সময়ে জাগিয়ে তোলা উচিত।

তোতাকাহিনী : প্রশ্নোত্তর

মকবুল সাহেবের বাড়িতে একটি মোরগ ছিল সময় অসময় ডাকতো  কোক্কুরুৎ কোক্কুরুৎ, মকবুল সাহেব ভীষণ বিরক্ত ছিলেন,একদিন কাজের ছেলে আবুল কে ডেকে বললেন এই মোরগটাকে এমন শিক্ষা দিবি যাতে আর এমন করে না ডাকে।

ক. তোতাকাহিনী গল্পটির লেখক কে?

খ. সংস্যারে অন্য অভাব আছে,কেবল নিন্দুক আছে যথেষ্ট বলতে কি বুঝিয়েছেন?

গ. উদ্দীপকের মকবুল সাহেবের সাথে তোতাকাহিনী গল্পে কোন চরিত্রের সাথে সাদৃশ্য পাওয়া যায় ব্যাখা কর।

ঘ. তোতাকাহিনী গল্প এবং উদ্দীপকটি তুলনামূলক আলোচনা কর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!