Monday, November 28
Shadow

টবে সিলভামিক্স ব্যবহারের নিয়ম : সিলভামিক্স টবে দেবেন কীভাবে

গাছের ট্যাবলেট বলে পরিচিত SILVAMIX নিয়ে এখন প্রচারণার শেষ নেই। অনেকে বলছেন এতে কাজও হচ্ছে ভালো। আবার অনেকেই জানতে চাচ্ছেন টবে সিলভামিক্স ট্যাবলেট ব্যবহারের নিয়ম বা সিলভামিক্স ট্যাবলেট সার টবে প্রয়োগ করবেন কীভাবে?

টবে সিলভামিক্স সার
টবে সিলভামিক্স সার দেয়ার নিয়ম জেনে নিন

গাছের প্রয়োজনীয় পুষ্টির চাহিদা পূরণে নতুন প্রযুক্তির সার ট্যাবলেট সার। চেক রিপাবলিক এ তৈরি সিলভামিক্স ট্যাবলেট সার ব্যবহার করা যায় সব গাছের জন্য। সিলভামিক্স ক্লোরাইডমুক্ত ও উচ্চমাত্রার পুষ্টিগুন সম্পন্ন। তবে এটি স্লো রিলিজিং হওয়ায় অন্য সারের চেয়ে বেশি নিরাপদ।

প্রতিটি ট্যাবলেট সারে গাছের প্রয়োজনীয় উপাদান পটাশিয়াম, নাইট্রোজেন, ফসফরাস ও ম্যাগনেসিয়াম প্রয়োজন অনুপাতে মেশানো আছে এবং এর এনপিকের অনুপাত ১৭ : ১৭ : ১০ ।

সকল প্রকার গাছের জন্য সিলভামিক্স ট্যাবলেট সার খুবই কার্যকরী প্রমাণ হয়েছে। বড় টবে সিলভামিক্স ব্যবহারেও ভালো ফলন পাওয়া গেছে। বিশেষ করে ফল গাছের জন্য সিলভামিক্স খুব উপকারী।

স্থানীয় জলবায়ু ও মাটির অবস্থার ওপর নির্ভর করে এই ট্যাবলেট ১৮ মাস পর্যন্ত গাছের শেকড়ে পুষ্টি সরবরাহ করতে পারে।

গাছের প্রয়োজনীয় উপাদান পটাশিয়াম, নাইট্রোজেন ও ফসফরাস সমন্বয়ে তৈরি করা এই ট্যাবলেট সার প্রয়োগ করলে আলাদা করে আর ইউরিয়া বা ডিএসপি-পটাশ এসব রাসায়নিক সার কেনার প্রয়োজন পড়ে না।

তবে বড় পরিসরে মানে, বড় জমির জন্য এই ট্যাবলেট সার ততটা কার্যকর নয়। আবার একেবারে ছোট টবেও এই সার ব্যবহার করতে মানা করা হয়।

 

সিলভামিক্স (SILVAMIX in Pot) ব্যবহার করলে কী লাভ

  1. সিলভামিক্স ট্যাবলেট সার পরিবেশবান্ধব, পুষ্টি উপাদান সম্পন্ন, ধীরে ধীরে দ্রবণীয় এবং স্লো রিলিজ ফার্টিলাইজার।
  2. সকল গাছের জন্য উপকারী।
  3. এটি মাটির পিএইচ লেভেলে ভালো প্রভাব ফেলে।
  4. স্লো রিলিজ ফার্টিলাইজার হওয়ায় গাছ তার প্রয়োজন মতো পুষ্টি ধীরে ধীরে গ্রহণ করতে পারে। তাই পুষ্টির আধিক্য বা অভাবের আশঙ্কা থাকে না।

 

টবে সিলভামিক্স সার প্রয়োগের পরিমাণ : How many Silvamix in single pot

  1. প্রতি ১ কেজি মাটির জন্য ১টি ট্যাবলেট ব্যবহার করার পরামর্শ দেয় এর কোম্পানি। তবে ফল গাছের জন্য ১০-১৫ টা ট্যাবলেট প্রয়োগ করে সুফল পাওয়া গেছে।
  2. সবজির গাছে বছরে ৫টা ট্যাবলেট দিলে ভালো।
  3. লোটাস, শাপলার বোলে ৩০-৪০ লিটার পানিতে ১৫ দিন পর পর ১টি সিলভামিক্স ট্যাবলেট দিলেই হবে।
  4. খালি জমির গাছের জন্য বা বাগানের জন্য প্রতি বর্গমিটারের জন্য ২০০-৪০০ গ্রাম সিলভামিক্স প্রয়োগ করতে হবে।
  5. প্রতি বর্গফুট মাটির জন্য ১টি ট্যাবলেট সার ব্যবহার করতে হবে।
  6. যেহেতু ট্যাবলেট সারটি ধীরে ধীরে গলে গিয়ে আস্তে আস্তে গাছের পুষ্টি পুরণের কাজ করবে তাই টবের ক্ষেত্রে এটি আস্ত অবস্থায় গাছের গোড়া থেকে ২ থেকে ৪ ইঞ্চি দূরে মাটির কমপক্ষে ৬ ইঞ্চি গভীরে গেঁথে দিতে হবে।
  7. টব বা ড্রামের উচ্চতা ৩ ফুটের বেশী হলে ৮ বা ১০ ইঞ্চি গভীরে দিতে হবে।

টবের গাছে সার কিভাবে দেবেন

সতর্কতা

  1. টবে কখনো প্রয়োজনের বেশি পানি দেওয়া যাবে না। পানি বেশি হলে সার গলে বেশি মিশে যেতে পারে বা বের হয়ে যেতে পারে।
  2. অব্যবহৃত ট্যাবলেট সার পলিথিনে মুড়ে বা বয়ামে রাখতে হবে যেন বাতাস না লাগলে। বাতাস ও তাপে এটির গুণাগুণ নষ্ট হয়ে যায়।
  3. একদম ছোট টবে এটি ব্যবহার না করাই উত্তম।

 

এই ট্যাবলেট সহজে পেতে চাইলে দারাজে অর্ডার করতে পারেন। বাংলাদেশের গবেষণা ইন্সটিটিউট এবং অনুমোদনকারী কর্তৃপক্ষ এখনও এই ট্যাবলেটের অনুমোদন দিয়েছে বলে জানা যায়নি। তাই বড় আকারে প্রয়োগের আগে টবে এক্সপেরিমেন্ট করে দেখতে পারেন সিলভামিক্স ট্যাবলেট সার।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!