Thursday, February 2
Shadow

কবুতর পালন : কবুতরের বসন্ত রোগ( Pigeon Pox)

কবুতর পালন

কবুতরের বসন্ত রোগ( Pigeon Pox)

কবুতর পালন করলে জানতে হবে তার রোগ সম্পর্কে। পায়রার বসন্ত একটি মশা বাহিত poxvirus গ্রুপ হতে সৃষ্ট সংক্রমণ থেকে হয়। অনেক প্রজাতির মধ্যে এই রোগ সৃষ্টিকারী ভাইরাস দেখা যাই। avipoxvirus উপগোষ্ঠী যেমন ফাউল বসন্ত হিসাবে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পর্কিত ভাইরাস একটি সংখ্যা অন্তর্ভুক্ত। এটি একটি সংক্রমিত রোগ যা পাখি খুব দ্রুত অগ্রগতি হয়, কিন্তু পাখি থেকে পাখি আস্তে আস্তে ছড়িয়ে পড়ে। ভাইরাস ত্বক ও শ্লেষ্মা ঝিল্লী টিস্যু ক্ষতি করে। ত্বকে lesion একটি scab অনুসরণ তিল মত nodule হিসাবে ফর্ম করে। scab
সাধারণত তিন থেকে চার সপ্তাহ স্থায়ী হয়। আর শ্লৈষ্মিক ঝিল্লী টিস্যু জড়িত হয়, এই রোগকে ভিজা বসন্ত বলা হয়। পায়রার বসন্ত মানুষের জন্য হুমকি নয়। বসন্ত বিশ্বব্যাপী কবুতরের ঝাঁকে ঝাঁকে এবং feral পায়রা হতে ঘটে থাকে। পায়রার/কবুতরের বসন্ত বৃদ্ধি প্রকোপ আর্দ্র গ্রীষ্মকাল এবং উষ্ণ শীতকালে আবহাওয়া পরিলক্ষিত
হয়। কবুতরের বসন্ত সম্ভবত সংক্রমণের বিভিন্ন উৎসের সঙ্গে যুক্ত, কবুতরের বসন্ত দুই ক্লিনিকাল ফর্ম হয়। মশার কামড় থেকে সংক্রমণ ফলাফল সবচেয়ে সাধারণ।

একথাও ঠিক যে এর ফলস্বরূপ ক্ষত শরীরের featherless এলাকায়, যেমন চোখের পাতা নেভিগেশন, ঠোঁট এবং মাঝে মাঝে অন্যত্র শরীরের উপর প্রায় প্রদর্শিত হবে। ক্ষত ছোট papules হিসেবে শুরু এবং ধীরে ধীরে একটি তিল মত পুরু অন্ধকার scab হয়। অবশেষে scabs খসা এবং নিরাময় সাধারণত সংক্রমণের চার সপ্তাহের মধ্যে সঞ্চালিত সম্পূর্ণ হবে। রোগের এই ফর্মটি কদাপি জীবন শঙ্কা হয় এবং এটি সাধারনত প্রশিক্ষণ বা রেসিং কবুতরের একটি বিরতির ফলাফল হিসাবে উত্পাত প্রায়ই বেশী।

• এই ভাইরাল রোগটি চামড়া অথবা শ্লৈষ্মিক ঝিল্লি আক্রমণ করে যা
• সাধারণত লালা দিয়ে পাখির মধ্যে বাহিত ।
• ভাইরাস সম্ভবত ভাগ খাদ্য ও জল দিয়ে, চামড়া বা মুখ আস্তরণের মধ্যে মিনিটের বিরতি (প্রায়ই বিন্দুরেখা দ্বারা ঘটিত) মাধ্যমে এন্ট্রি নাফা, বা কামড় দিয়ে মশা দ্বারা বাহিত হতে পারে।
• পায়রার বসন্ত মানুষ সংক্রমিত করতে পারে না।
• Woodpigeons তারা ভাইরাস যুক্ত হলে, বিশেষ করে খারাপভাবে নিপীড়িত হয়।

উপসর্গ/লক্ষণ :

• পাখি ফুট উপর, চোখের চারপাশে, যেমন ঠোঁট হিসাবে unfeathered অংশে scabby বা কর্কশ ক্ষত (‘pocks’) দেখাতে পারে।
• ঠোঁটের বা গলা গহ্বর মধ্যে canker বলে ভুল হতে পারে, খারাপ গন্ধযুক্ত ‘growths’ (mucosal ফর্ম হিসাবে পরিচিত) হতে পারে।
• এর বাইরের চামড়া ক্ষত দেখে অনভিজ্ঞ কোন জন বিভ্রান্ত হতে পারেন মুখের মধ্যে ক্ষত খাওয়ানোর বা শ্বাস হস্তক্ষেপ না করলে

চিকিত্সা:

• কোন বিরোধী ভাইরাল চিকিৎসা আছে নাই।
• ভিটামিন এ ত্বকের ক্ষত নিরাময় উন্নতিতে সাহায্য করতে পারে।
• হোমিও Antimonium tartaricu 3x or Antimonium crudum 3x (অরিজিনাল জার্মান বিটি) সম্ভব হলে 3 ড্রপ প্রতি 3 ঘন্টা পর পর অথবা 3 বার ১ দিন দিতে পারেন।
• অথবা হোমিও Rhus Tox 3x (অরিজিনাল জার্মান বিটি) সম্ভব হলে 3 ড্রপ প্রতি 3 ঘন্টা পর পর অথবা 3 বার ১ দিন দিতে পারেন।
• হোমিও Borax 30 (মৌলিক জার্মান বিটি) মাসিক একবার প্রয়োগ করুন. (পানীয় জল 1 লিটার 1 সিসি) এটি সংক্রামক রোগের কোনো ধরনের সংক্রমিত হতে রক্ষা করতে পারে।
• বসন্তের উপর Povisef / Potas / Savlon ক্রিম বা যে কোন এন্টিসেপটিক ক্রিম বা Viola 2% (মানুষের) প্রয়োগ করতে পারেন।
• Reboflabin / Rebson 1 টি ট্যাব একটি দিন।
• অন্য কোন ভিটামিন দিবেন না।
• দৈনন্দিন এন্টি জীবাণু স্প্রে করুন বা কমপক্ষে 2 বার সপ্তাহে ।
• নিম পাতার পেস্ট ভাল প্রতিকার করতে পারে।
• অত্যধিক ক্ষেত্রে (মিশ্রণ ইনজেকশন শুধুমাত্র 12 ঘন্টার মধ্যে ব্যবহার করুন) 3 -4 দিন এ Sk CEP ইনজেকশন 500 (অথবা Sephrodhine গ্রুপ) ১ সিসি দিনে 2 বার প্রয়োগ করুন।
• মুখ ভিতর ক্ষত মুছে ফেলার প্রচেষ্টা করবেন না – তারা আসলে ত্বক outgrowths হয় – এই মারাত্মক রক্তক্ষরণের কারণ হতে পারেন।
• কিছু কিছু বিশেষজ্ঞ রোগ নিয়ন্ত্রণ ভ্যাকসিন এর উপর নির্ভর করতে উপদেশ দেন কিন্তু ভ্যাকসিন এক্ষেত্রে কোন কার্যকর ভুমিকা রাখে না।

প্রতিরোধ:

• কঠোর স্বাস্থ্যবিধি আনুসরন।
• মশা নিয়ন্ত্রণ করুন কারন এটি একটি বড় সমস্যা কবুতরের জন্য, মশা প্রতিরোধ ছাড়া পক্স নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয় ।

পরিশেষে, একটা কথা ভাল করে মনে রাখা প্রয়োজন যে, পক্স/বসন্ত যেহেতু একটি ভাইরাল রোগ তাই, যে যাই বলুন না কেন অ্যান্টিবায়োটিক দ্বারা এই রোগের

চিকিৎসা সম্ভব নয় এবং এটি কোন উপকারেও আসে না। তাই শুধু শুধু আপনার কবুতরের উপর বাড়তি চাপ দিবেন না অ্যান্টিবায়োটিক প্রয়োগ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Please disable your adblocker or whitelist this site!

error: Content is protected !!