Thursday, October 28
Shadow

ছাদে সরিষা চাষ | টবে চাষ করুন সরিষা

ছাদে সরিষা চাষশীতকালীন ফসল সরিষা আমাদের দেশে ভোজ্যতেল হিসেবে বিশেষ পরিচিত।  সরিষার বীজ থেকে তেল হয়। এছাড়া সরিষা শাক ও খাওয়া যায়। সরিষা বীজ থেকে তেল বের করার পর এর খৈল সার হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। আজ আমরা জানব কিভাবে ছাদে সরিষা চাষ করা যায়। চলুন জেনে নিই।

 

পাত্র নির্বাচন

সরিষা চাষ করার জন্য প্রথমে গামলা  জাতীয় টব বাছাই করতে হবে। একটু বড় আকারের টব বাছাই করা ভালো। তাহলে এক সাথে অনেক বীজ বপন করা যাবে এবং ফলন ভালো হবে। টবের নিচে পানি নিষ্কাশনের জন্য ছিদ্র করে দিতে হবে।

 

বীজ বপনের সময়

সরিষা বীজ সাধারনত মধ্য আশ্বিন থেকে মধ্য কার্তিক পয©ন্ত বপন করা যায়।

 

ছাদে সরিষা চাষ – বিস্তারিত

 

ছাদে সরিষা চাষ করতে মাটি তৈরি

সরিষা চাষে প্রথমেই মাটি তৈরি করে নিতে হবে। উব©র দো আঁশ মাটি সরিষা চাষের জন্য বিশেষ উপযোগী। মাটিতে সার মিশিয়ে নিতে হবে। মাটি ঝুরঝুরে করে নিতে হবে। মাটিতে যেন কোন বড় ঢেলা না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। মাটির সাথে সবুজ সার এবং কম্পোস্ট সার মিশিয়ে নিতে হবে। সারের পরিমান হবে সবুজ সার ৭০ ভাগ এবং কম্পোস্ট সার ৩০ ভাগ। এছাড়া এর সাথে কিছু নিম খৈল মিশিয়ে নেয়া যেতে পারে। এতে গাছের পুষ্টির পাশাপাশি মাটিতে কোন পোকা মাকড় থাকলে তাও দূর হয়ে যাবে। টবে মাটি দেয়ার আগে টবের ছিদ্র ইটের টুকরা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। নয়তো প্রতিবার পানি দেয়ার সময় ছিদ্র দিয়ে মাটিও নিচে পড়ে যাবে।

 

বীজ বপন

মাটি তৈরি হয়ে গেলে বীজ বপন করতে হবে। স্থানীয় কৃষকদের কাছ থেকে বীজ সংগ্রহ করা যাবে বা বাজার থেকে ও বীজ কেনা যাবে। সরিষার বীজ আকারে ছোট হয় তাই বপন করার আগে এর সাথে ছাই মিশিয়ে নেয়া যেতে পারে। বীজ গুলো টবের মাটির উপর ছড়িয়ে দিতে হবে তারপর হালকা হাতে মাটিগুলো একটু নেড়ে দিতে হবে। এরপর এতে পানি দিতে হবে। বীজ বপন করার পর পানি একটু বেশি দিতে হবে। তারপর একে সূর্যের আলোতে রেখে দিতে হবে। বীজ বপন করার ৭ দিন পর চারা গজাবে। তবে মাটিতে পর্যাপ্ত রস থাকলে এর আগেও চারা গজায়।

সার প্রয়োগ

এক মাস পর যখন গাছ ফুল আসা শুরু করবে তখন গাছে সার প্রয়োগ করতে হবে। গাছে জৈব সার ব্যবহার করতে হবে । জৈব সার ব্যবহারে গাছের বৃদ্ধি ভালো হবে। গোবর সার বা তরকারির খোসা ইত্যাদি দেয়া যেতে পারে। তাছাড়া মাটি তৈরির সময় যে পরিমান সার ব্যবহার করা হয়েছে তাতেই গাছ ভালো হবে তবে চাইলে কিছু পরিমান রাসায়নিক সার ও ব্যবহার করা যাবে।

পরিচর্যা

বীজ বপন করার ১৫-২০ দিন পর একবার নিড়ানি দেয়া ভালো এবং গাছে ফুল আসার পর আরেকবার নিড়ানি দিতে হবে। সরিষা গাছ চাষে মাটিতে পর্যাপ্ত পানি থাকতে হবে। মাটি শুকনা হলে গাছের ফলন ভালো হয় না।

রোগ ও পোকা দমন

ছাদে সরিষা চাষ করতে গেলেও গাছে জাব পোকা আক্রমণ করে থাকে। পোকা আক্রমন করলে ম্যালাথিয়ন ৫৭ ইসি পরিমিত মাত্রায় ব্যবহার করতে হবে।

এ ছাড়া সরিষা গাছে পাতা ঝলসানো রোগ হয়ে থাকে। এ রোগে গাছের পাতায় প্রথমে গোলাকার ও পরে গাঢ় বাদামি দাগ দেখা যায়। আস্তে আস্তে পাতা ঝলসে যায়।

এসব থেকে বাচঁতে বীজ বপনের আগেই বীজ শোধন করে নেয়া ভালো্। এছাড়া রোভরাল নামক ছত্রাকনাশক ব্যবহার করেও রোগ দমন করা যায়।

ছাদে সরিষা চাষ : ফসল সংগ্রহ

বীজ বপন করার ২৫ দিন পর থেকে শাক সংগ্রহ করা যায়। এক মাস পর থেকে গাছে ফুল আসা শুরু করে তখন ও শাক সংগ্রহ করা যায়।  সরিষা ফল যখন খড়ের মত রঙ ধারন করবে এবং পাতা যখন হলুদ হয়ে যাবে তখন ফসল সংগ্রহ করতে হবে।

 

আরও পড়ুন: ছাদে মুলা চাষ পদ্ধতি | যেভাবে বাড়ির ছাদেই মুলা ফলাবেন

আরও পড়ুন: টব থেকে পিঁপড়া দূর করবেন কী করে | থাকলো ১৫টি উপায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!